দুবাই পার্টনার ভিসার সুবিধা

দুবাই পার্টনার ভিসা হলো এক ধরণের রেসিডেন্স ভিসা যা দুবাইতে বসবাসকারী ব্যক্তিদের স্বামী/স্ত্রী, সঙ্গী, বা নির্ভরশীল সন্তানদের প্রদান করা হয়।

দুবাই পার্টনার ভিসা বিভিন্ন সুবিধা প্রদান করে, যার মধ্যে রয়েছে

1. দুবাইতে বসবাস ও কাজ করার অনুমতি:

  • পার্টনার ভিসাধারীরা দুবাইতে বৈধভাবে বসবাস করতে পারেন এবং কর্মসংস্থানের জন্য আবেদন করতে পারেন।
  • তারা দুবাই সরকারের সকল সুযোগ-সুবিধা, যেমন স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা, এবং আবাসন, উপভোগ করতে পারেন।

2. দীর্ঘমেয়াদী ভিসা:

  • পার্টনার ভিসা সাধারণত দুই বছরের জন্য দেওয়া হয় এবং এটি নবায়ন করা যায়।
  • এর মানে হল যে পার্টনার ভিসাধারীরা দীর্ঘ সময় ধরে দুবাইতে থাকতে পারেন।

3. পারিবারিক স্পনসরশিপ:

  • পার্টনার ভিসাধারীরা তাদের স্বামী/স্ত্রী, সঙ্গী, এবং নির্ভরশীল সন্তানদের দুবাইতে স্পনসর করতে পারেন।
  • এর মানে হল যে তাদের পরিবার তাদের সাথে বসবাস করতে এবং দুবাইতে একই সুবিধা উপভোগ করতে পারবে।

4. ভ্রমণ স্বাধীনতা:

  • পার্টনার ভিসাধারীরা বহুবার ভিসা পান যা তাদের দুবাই থেকে বারবার প্রবেশ ও বের হওয়ার অনুমতি দেয়।
  • তারা সহজেই অন্যান্য GCC দেশ ভ্রমণ করতে পারেন।

5. ব্যবসায়িক সুযোগ:

  • কিছু ক্ষেত্রে, পার্টনার ভিসাধারীরা দুবাইতে ব্যবসা শুরু করতে পারেন।
  • তারা ফ্রি জোনে ব্যবসা করার জন্য লাইসেন্স পেতে পারেন।

6. শিক্ষাগত সুযোগ:

  • পার্টনার ভিসাধারীদের সন্তানরা দুবাইয়ের স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে পারে।
  • তারা বিভিন্ন শিক্ষাগত সুযোগ-সুবিধা উপভোগ করতে পারবে।

দুবাই পার্টনার ভিসার জন্য আবেদন করতে যোগ্যতা

  • আবেদনকারী অবশ্যই বৈধ পাসপোর্টধারী হতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স 21 বছরের বেশি হতে হবে।
  • আবেদনকারী অবশ্যই দুবাইতে বসবাসকারী একজন স্থানীয় নাগরিক, বাসিন্দা, বা বৈধ ওয়ার্ক পারমিটধারীর স্বামী/স্ত্রী, সঙ্গী, বা নির্ভরশীল সন্তান হতে হবে।
  • আবেদনকারীকে অবশ্যই প্রমাণ করতে হবে যে তারা আর্থিকভাবে স্ব-নির্ভরশীল।
  • আবেদনকারীকে অবশ্যই ভালো স্বাস্থ্যের হতে হবে এবং কোনও সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হতে পারে না।

আরো দেখুন: দুবাই এমপ্লয়মেন্ট ভিসা কি

Leave a Comment