গাছের ৫টি প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে জানুন

পৃথিবীর বুকে প্রাণের স্পন্দন ধরে রাখতে গাছের ভূমিকা অপরিসীম। আমাদের এই সবুজ গ্রহের সৌন্দর্য, জীববৈচিত্র্য, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা, এমনকি আমাদের অস্তিত্বের জন্যও গাছ অপরিহার্য। গাছের অবদান আমাদের জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে বিস্তৃত। আসুন, গাছের ৫টি অত্যাবশ্যকীয় প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে জেনে নিই।

গাছের ৫টি প্রয়োজনীয়তা:

১. অক্সিজেন সরবরাহ:

গাছ আমাদের শ্বাসের জন্য অত্যাবশ্যকীয় অক্সিজেন উৎপাদন করে। সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে গাছ কার্বন ডাই অক্সাইড গ্রহণ করে এবং অক্সিজেন নির্গত করে। একটি পূর্ণবয়স্ক গাছ বছরে প্রায় ১১৮ কিলোগ্রাম অক্সিজেন উৎপাদন করতে পারে, যা দুইজন মানুষের বছরের অক্সিজেনের চাহিদা পূরণ করতে পারে।

২. বায়ুমণ্ডল পরিশোধন:

গাছ বায়ুমণ্ডল থেকে ক্ষতিকর গ্যাস, ধূলিকণা, দূষণকারী পদার্থ শোষণ করে বাতাসকে পরিষ্কার রাখে। গাছের পাতা বায়ুবাহিত দূষণকারী পদার্থ শোষণ করে এবং বৃষ্টির পানি দিয়ে তা মাটিতে নামিয়ে দেয়। গাছ শুধু বাতাসকে পরিষ্কারই করে না, বরং বাতাসের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

৩. মাটির ক্ষয়রোধ:

গাছের শিকড় মাটিকে আঁকড়ে ধরে রাখে, যা মাটির ক্ষয়রোধে সহায়তা করে। গাছের শিকড় মাটির গভীরে প্রবেশ করে পানির সঙ্গে মাটির কণাগুলোকে আবদ্ধ করে রাখে। এটি মাটির উর্বরতা বৃদ্ধি করে এবং কৃষি উৎপাদন বাড়াতে সাহায্য করে।

৪. জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ:

গাছ অসংখ্য প্রাণী, পাখি, কীটপতঙ্গের আবাসস্থল। গাছের পাতা, ফুল, ফল বিভিন্ন প্রাণীর খাদ্যের উৎস। গাছের বৈচিত্র্য জীববৈচিত্র্যের ভিত্তি। বন উজাড় হলে বন্যপ্রাণীরা তাদের আবাসস্থল হারায় এবং অনেক প্রজাতি বিলুপ্তির পথে এগিয়ে যায়।

৫. জলবায়ু নিয়ন্ত্রণ:

গাছ বায়ুমণ্ডল থেকে কার্বন ডাই অক্সাইড শোষণ করে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। গাছের মাধ্যমে কার্বন ডাই অক্সাইড শোষণ বৈশ্বিক উষ্ণতা হ্রাস করতে সাহায্য করে। গাছ বাষ্পীভবনের মাধ্যমে বায়ুমণ্ডলে জলীয় বাষ্প নির্গত করে, যা মেঘ তৈরি করে এবং বৃষ্টিপাত ঘটায়।

উপসংহার:

গাছ আমাদের গ্রহের অমূল্য সম্পদ। গাছ ছাড়া পৃথিবীতে প্রাণের অস্তিত্ব কল্পনা করা অসম্ভব। আমাদের উচিত গাছের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতন হওয়া এবং গাছ রোপণ ও সংরক্ষণে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করা। গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান, পৃথিবীকে সবুজ রাখুন।

Leave a Comment